মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:২৭ অপরাহ্ন

ঘোষনা :
বর্তমান সময়ের জন্য  সকল জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহী প্রার্থীগণ জীবন বৃত্তান্ত, পাসপোর্ট সাইজের ১কপি ছবি ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ ই-মেইল পাঠাতে পারেন। মোবাইল: ০১৭৯৩-৫০১৮৫০ ও ০১৯৬৬-৭৮৭৭০৩  ই-মেইল: newsdailybartomansomoy@gmail.com
সংবাদ শিরোনাম :

বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সিং এর ভবিষ্যৎ

তানজিরুল ইসলাম সামি: ফ্রিল্যান্সিং এমন এক পেশা, যেখানে প্রথাগত চাকরির আর দশটা নিয়মকানুন নেই। কিন্তু কাজের ক্ষেত্রে নিয়ম মেনে না করলে শর্টকাট সফলতার কোনো সুযোগ নেই। সত্যি বলতে কি, যাঁরা আউটসোর্সিংয়ে জড়িত, তাঁদের কোনো বিচারেই ঘড়ি ধরে কাজ করা চাকরিজীবীর সঙ্গে তুলনা করা যায় না।

কারণ, ফ্রিল্যান্সারের কাজ যখন-তখন। অনেকে তো রাত জেগে কাজ করেন। তবে তাঁদের মুক্ত এ স্বাধীন পেশায় করপোরেট জগতের কর্তৃপক্ষের চাপ নেই। কিন্তু কাজের চাপ একেবারে কম থাকে না। দেশে বা বিদেশে কাজের ক্ষেত্রে ‘আপওয়ার্ক’, ‘ফাইবার’ বা অন্য কোনো প্ল্যাটফর্মে কাজের ক্ষেত্রে মান নিশ্চিত করতে হয়। প্রতিযোগিতা করতে হয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রতিযোগীদের ক্ষেত্রে। কাজের দক্ষতা প্রমাণ করতে পারলে তবে ভালো পারিশ্রমিক মেলে।

বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে বাংলাদেশের অবস্থান পূর্বের চেয়ে সন্তোষজনক পর্যায়ে রয়েছে। ফ্রিলাঞ্চিং মার্কেট প্লেস “আপওয়ার্ক” সম্প্রিতিক এক জরিপে প্রকাশ করা হয় যে, সাইটটিতে বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সারের হিসাব অনুযায়ী আমরা বিশ্বব্যাপী তৃতীয় অবস্থানে রয়েছি।

কিন্তু ২০০৯ সালেও “আপওয়ার্ক” এর মোট কাজের মাত্র ২ শতাংশ কাজ করতে পেরেছিল বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সাররা । পরবর্তীতে, ২০১২ সালে অর্থাৎ মাত্র তিন বছরেই আপওয়ার্ক বাংলাদেশ শীর্ষ তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে, এবং আপওয়ার্ক মোট কাজের ১০ শতাংশ কাজই বাংলাদেশিরা সম্পন্ন করেছিল। তাছাড়া, বর্তমানে (১৪-২০১৫ সাল) আপওয়ার্ক মোট কাজের ১২-১৫ শতাংশ কাজই বাংলাদেশিরা সম্পন্ন করছে।
বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সারদের সম্পর্কে আপওয়ার্ক ভাইস প্রেসিডেন্ট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড এন্টারপ্রাইস “ম্যাট কুপার” জানিয়েছেন, বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা খুব ভালো কাজ করছেন এবং তাঁদের দ্রুতই উন্নতি হচ্ছে।

শুধু আপওয়ার্ক ই নয়, জনপ্রিয় প্রতিটি মার্কেটপ্লেসেই বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সাররা ভালো রেটে কাজ করছে এবং প্রতি মাসেই হাজার হাজার ডলার দেশে আনছে। এছাড়া, আপওয়ার্ক সহ প্রতিটা জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসেই আমাদের অবস্থান তৃতীয় থেকে পঞ্চমের মধ্যে রয়েছে ।

বাংলাদেশের ওভারঅল অবস্থান নিয়ে বলতে গেলে, ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে আমরা সাধারণ ডাটা এন্ট্রির কাজ থেকে শুরু করে উচু মানের বিভিন্ন ক্যাটাগরির কাজেও বেশ ভাল অবস্থানে রয়েছি। বর্তমানে দেশের প্রায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার তরুণ মুক্ত পেশাজীবী (ফ্রিল্যান্সার) হিসেবে সক্রিয়ভাবে যুক্ত রয়েছে ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিংয়ে।


লেখক, ফ্রিলেন্স গ্রাফিক্স ডিজাইনার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

  • গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়মানুযায়ী তথ্য মন্ত্রনালয় বরাবর নিবন্ধনের জন্য আবেদিত অনলাইন পত্রিকা । © All rights reserved © 2019 dailybartomansomoy.com
 
Design & Developed BY Anamul Rasel